Upcoming Events

No upcoming events.

ফুলবাড়ীতে জনতার প্রতিরোধের মুখে জিসিএমের নির্বাহী গ্যারি লাই পুলিশ প্রহরায় পলিয়ে রক্ষা পেলো, লাইয়ের গ্রেফতার দাবি

ফুলবাড়ী বিরামপুর ঢাকা ও লন্ডনে বাংলাদেশের সম্পদ নিয়ে এশিয়া এনার্জির (জিসিএম) অপতৎপরতার প্রতিবাদে, এশিয়া এনার্জির প্রধান গ্যারী লাইসহ সহযোগী ব্যক্তিদের গ্রেফতার ও বিচার এবং রক্তে লেখা ফুলবাড়ী চুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়নের দাবিতে তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির ফুলবাড়ী শাখা এলাকার অন্যান্য সংগঠন ও জনপ্রতিনিধিসহ আজ দিনব্যাপী অবরোধ শেষে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি, প্রতি সপ্তাহে মিছিল সমাবেশ এবং আগামি ২৭ ডিসেম্বর সেখানে মহাসমাবেশ আহবান করেছে। এর সাথে সংহতি জানিয়ে আজ ঢাকায় জাতীয় কমিটির সমাবেশ থেকে আগামি ৩ ডিসেম্বর সারাদেশে একই দাবিতে বিক্ষোভ ও সমাবেশের কর্মসূচি দেয়া হয়েছে।

মিথ্যাচার, সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও চক্রান্তের ওপর ভর করে চোরের মতো ফুলবাড়ীতে প্রবেশ করতে গিয়ে গতকাল ২৬ নভেম্বর ধরা পড়েছে খুনি জালিয়াত কোম্পানি এশিয়া এনার্জির অন্যতম প্রধান গ্যারী লাই। পুলিশ তাকে জনরোষ থেকে রক্ষা করে নিয়ে গেছে ঢাকায়। ২০০৬ সালে লক্ষ মানুষের ঘেরাও কর্মসূচিতে সরকারি বাহিনীর মাধ্যমে হামলা ত্রাস চালিয়ে, গুলি করে মানুষ হত্যা করেও টিকতে পারেনি এশিয়া এনার্জি, গণঅভ্যুত্থানের মুখে গভীর রাতে তারা ফুলবাড়ী ছেড়ে পালিয়েছিলো তখন। এর ৬ বছর পর গত ২০১২ সালের নভেম্বরে আবারো ১৪৪ ধারা জারি করে কোম্পানির প্রবেশের রাস্তা পরিষ্কার করবার চেষ্টা হয়। জনপ্রতিরোধ সেই চেষ্টা ব্যর্থ করে দেয়। চোরের মতো গ্যারী লাই গং তখনও প্রবেশ করতে চেষ্টা করেছিলো, তখনও জনপ্রতিরোধের মুখে পুলিশের আশ্রয়ে ভেগেছিল। এবারও তাই হয়েছে। চক্রান্ত আছে, প্রতিরোধও জারি আছে। এই অবিরাম প্রতিরোধের মাধ্যমে ফুলবাড়ীসহ ছয় থানার মানুষ শুধু উত্তরবঙ্গ নয়, পুরো বাংলাদেশকে অচিন্তনীয় এক ধ্বংসযজ্ঞ থেকে রক্ষা করছেন।

বহু অপরাধ এই ভুইফোড় জালিয়াত কোম্পানির। সেগুলোর মধ্যে আছে: ১. দেশের পানি সম্পদ আবাদী জমি ও উত্তরবঙ্গের ধ্বংসযজ্ঞের একটি প্রকল্পকে ঘুষ আর কমিশন দিয়ে উন্নয়ন প্রকল্প হিসেবে প্রচার করছে। ২. কোন ধরনের অনুমোদন না থাকা সত্ত্বেও ফুলবাড়ী কয়লা খনি দেখিয়ে লন্ডনে এই কোম্পানি শেয়ার ব্যবসা করছে। ৩. সেই মুনাফার টাকায় এইদেশে কতিপয় মন্ত্রী, আমলা, কনসালট্যান্ট ভাড়া করে তাদের দিয়ে মিথ্যাচার চালাচ্ছে। ৪. সমর্থক গোষ্ঠী তৈরির চেষ্টায় এলাকায় দুর্নীতি ও মাদকদ্রব্যের বিস্তার ঘটাচ্ছে। ৫. সম্পদ লুন্ঠনের প্রয়োজনে খুন সন্ত্রাস জখমের নতুন চক্রান্ত চালাচ্ছে।

ক্ষতিপূরণ আদায় করে এশিয়া এনার্জিকে (জিসিএম) বহিষ্কার, গ্যারী লাই ও তার সহযোগীদের গ্রেফতার ও বিচার এবং ফুলবাড়ী চুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়নের দাবি তাই সারাদেশের মানুষের।